সোমবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:১২ পূর্বাহ্ন

নোটিশ
আমাদের ওয়েব সাইটে আপনাকে স্বাগতম.........
শিরোনাম >>>
গাবতলীতে যুবদল নেতা সোহাগ অসুস্থ্য ॥ টিএমএসএস হাসপাতালে ভর্তি সোহেল সভাপতি, মনিন্দ্র সম্পাদক গাবতলীর সুখানপুকুর ৭নং ওয়ার্ড যুবলীগের সম্মেলন বগুড়ায় ২৯৭ তম রোভার স্কাউট লিডার ওরিয়েন্টেশন কোর্স’২১ অনুষ্ঠিত গাবতলীর কাগইলে প্রতিন্ধীদের কল্যাণে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত গাবতলীর দক্ষিনপাড়া লাংলু তরুণ সংঘ উন্নয়ন ক্লাব উদ্বোধন কাহালুর ডোমরগ্রাম কেন্দ্রীয় বড় জামে মসজিদের ছাদ ঢালাই কাজের উদ্বোধন শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের মাজারে ফুলেল তোড়া দিয়ে শ্রদ্ধা জানালেন নব-গঠিত কেন্দ্রীয় কৃষকদলের নেতৃবৃন্দ ধ্বংসের শেষ ধাপে ঐতিহ্যবাহী তুষভান্ডার জমিদার বাড়ী বগুড়ায় দেড় কেজি গাজা ও চাপাতি সহ গ্রেফতারঃ ১ সোনাতলায় হাইস্কুল মাঠে ফুটবল টুর্ণামেন্ট উদ্বোধন কামালেরপাড়া একাদশের কাছে বিশুরপাড়া গ্রাম উন্নয়ন সংস্থা ২-১ গোলে পরাজিত

গাবতলীতে এ্যালকাহল পানে মাছ ব্যবসায়ীর মৃত্যুর ঘটনায় হোমিও ডাক্তারের বিরুদ্ধে মামলা

গাবতলীতে এ্যালকাহল পানে মাছ ব্যবসায়ীর মৃত্যুর ঘটনায় হোমিও ডাক্তারের বিরুদ্ধে মামলা

মুহাম্মাদ আবু মুসাঃ বগুড়ার গাবতলীতে বিষাক্ত নেশা জাতীয় দ্রব্য (মদ বা এ্যালকাহল) পানে শহিদুল ইসলাম (২৮) মাছ ব্যবসায়ীর মৃত্যুর ঘটনায় থানায় ২জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

মৃত শহিদুল ইসলামের স্ত্রী নুরজাহান বেগম বাদীনি হয়ে গত শনিবার রাতে মামলাটি দায়ের করা হয়। স্থানীয় গোলাবাড়ী বন্দরের বিউটি হোমিও হল এর মালিক ও বণিক সমিতির সাবেক সভাপতি ডাঃ বাহানুল আলম বাদল (৫৫) ও তার ছেলে আরাফাত রহমান (৩২)কে মামলার আসামী করা হয়েছে।

এর মধ্যে ডাঃ বাহানুল আলম বাদলকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ঘটনার দিনই পুলিশ আটক করলে পরে তাকে গ্রেফতার দেখিয়ে গতকাল রোববার জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

গ্রেফতারকৃত ডাঃ বাহানুল আলম বাদল পূর্ব মহিষাবান গ্রামের মৃত হাফিজার রহমান খোকা’র ছেলে। মামলার ধারা দেয়া হয়েছে ৩০৪(ক)/১০৯ দন্ড বিধি, যার একটি ধারাতে অবহেলা বা অসাবধানতা জনিত মৃত্যু অপর ধারাতে মৃত্যুর প্ররোচনা।

এ ব্যাপারে থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) জিয়া লতিফুল ইসলামের সাথে কথা বললে তিনি মামলা দায়ের ও ডাঃ বাহানুল আলম বাদলকে গ্রেফতার করে জেলা হাজতে পাঠানোর কথা স্বীকার করেছেন। উল্লেখ্য, উপজেলার পশ্চিম মহিষাবান মধ্যপাড়া গ্রামে গত ২৪এপ্রিল/২১ শনিবার রাত আনুমানিক ২টায় এই মৃত্যুর ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (গাবতলী সার্কেল) সাবিনা ইয়াসমিন ও থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) জিয়া লতিফুল ইসলাম দ্রুত ঘটনাস্থলে ছুটে গিয়ে পরিদর্শন করেন এবং লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়ে দেন। বিষাক্ত নেশা জাতীয় দ্রব্য পানে মৃত শহিদুল ইসলাম পশ্চিম মহিষাবান মধ্যপাড়া গ্রামের মৃত সিরাজুল ইসলামের ছেলে। অপর দিকে ময়না তদন্ত বা পুলিশকে লাশ না দেয়ার কারনে মৃত শহিদুল ইসলামের পরিবার প্রথমে জানিয়ে ছিলেন, বিষাক্ত নেশা জাতীয় দ্রব্য (মদ বা এ্যালকাহল) পানে নয়, হৃদ রোগে আক্রান্ত হয়ে শহিদুল ইসলাম মারা গেছে। আবার পরে অবহেলা বা অসাবধানতা জনিত মৃত্যু এবং মৃত্যুর প্ররোচনা’র অভিযোগ এনে তার স্ত্রী নুরজাহান বেগম বাদীনি হয়ে মামলাটি দায়ের করেন। শনিবার দাফনের প্রায় এক ঘন্টা আগে পুলিশ লাশ নিয়ে গেলেও ময়না তদন্ত শেষে ২৫ এপ্রিল রোববার বাদ যোহর তার নামাজে জানাজা’র পর দাফন সম্পন্ন করা হয়েছে।

শেয়ারকরুন: