সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৭:৫৮ পূর্বাহ্ন

নোটিশ
আমাদের ওয়েব সাইটে আপনাকে স্বাগতম.........
শিরোনাম >>>
গাবতলীতে মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকদের সাথে মতবিনিময় প্রধান অতিথি রাগেবুল আহসান রিপু গাবতলীতে নৌকা বাইচ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত মোকামতলায় এলপিজি অটো গ্যাস ষ্টেশনের উদ্বোধন কাহালুর পাইকড় ইউনিয়নে সরকারি খরচে আইনগত সহায়তা প্রদান বিষয়ক প্রাতিষ্ঠানিক গণশুনানী অনুষ্ঠিত ডোমারে সড়ক দূঘর্টনায় যুবক নিহত গাবতলীতে শিক্ষক সুজাকে লাঞ্ছিত করায় সুজনের নিন্দা গাবতলীতে শহীদ মুক্তিযোদ্ধাদের মাগফিরাত ও জীবিতদের কল্যাণ কামনায় দোয়া মাহফিল গাবতলীর নেপালতলী ইউনিয়ন মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড’র কমিটি অনুমোদন বগুড়া সদরের নিশিন্দারা ইউনিয়নের দশটিকায় ফুটবল টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত সোনাতলা-গাবতলী সড়কে  ট্রাকের চাপায় পৃষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলেই মোটরসাইকেল আরোহী মৃত্যু হয়েছে

গাবতলীতে ধারের ২’শ টাকাকে কেন্দ্র করে বন্ধু’র হাতে বন্ধু খুন

গাবতলীতে ধারের ২’শ টাকাকে কেন্দ্র করে বন্ধু’র হাতে বন্ধু খুন

মুহাম্মাদ আবু মুসাঃ বগুড়ার গাবতলীতে ধার (কর্জ) ২’শ টাকাকে কেন্দ্র করে আব্দুস সালাম (১৮) নামের এক যুবককে পেটে ছুরিকাঘাত করে খুন করেছে তার পাষন্ড বন্ধু জীবন মিয়া (১৮)।

২১ মে শুক্রবার দিবাগত রাত আনুমানিক ৯টায় উপজেলার বালিয়াদিঘী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়ে দিয়েছেন।

জানা গেছে, ওই গ্রামের সাজু প্রামানিকের ছেলে আব্দুস সালাম ও প্রতিবেশী আবুল হোসেনের ছেলে জীবন মিয়ার মধ্যে ঘনিষ্ঠ বন্ধুত্ব ছিল। বন্ধত্বের কারনে আব্দুস সালাম বেশ কিছু দিন আগে বন্ধু জীবন মিয়ার নিকট থেকে ২’শ টাকা ধার (কর্জ) নেয়। এই টাকাকে কেন্দ্র করে উভয়ের মধ্যে কিছুটা বিরোধ সৃষ্টি হয়। এর এক পর্যায়ে শুক্রবার দিবাগত রাত আনুমানিক ৯টায় জীবন মিয়া বাড়ির পাশে তার বন্ধু আব্দুস সালামকে ডেকে নেয়। সরল বিশ্বাসে বন্ধু’র ডাকে আব্দুস সালাম সাড়া দিলে তাদের কিছুটা বিরোধ থাকায় তা সমাধান হয়। এর পর দুই বন্ধুই এক সাথে তাদের গন্তব্যস্থলে চলে যাওয়ার পথে একটু ফাঁকা জায়গায় পৌঁছিলে কিছু বুঝে উঠার আগেই আব্দুস সালামের পেটে ছুরিকাঘাত করে পাষন্ড বন্ধু জীবন মিয়া পালিয়ে যায়।

পরে গুরুত্বর আহত আব্দুস সালামের চিৎকারে আশে পাশের লোকজন ছুটে এসে তাকে উদ্ধার করে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে দায়িত্বরত চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষনা করেন।

এ ব্যাপারে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাহবুবুর রহমান এর সাথে কথা বললে তিনি ঘটনার বিষয় নিশ্চিত করেছেন। থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) জিয়া লতিফুল ইসলামের সাথে কথা বললে তিনি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেছেন, ঘটনার প্রেক্ষিতে থানায় হত্যা মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে এবং ঘাতককে গ্রেফতার করতে আমাদের অভিযান অব্যহত রয়েছে।

শেয়ারকরুন: