শুক্রবার, ১৮ Jun ২০২১, ১২:১৮ পূর্বাহ্ন

নোটিশ
আমাদের ওয়েব সাইটে আপনাকে স্বাগতম.........
শিরোনাম >>>
খালেদা জিয়ার উন্নত চিকিৎসার জন্য বিদেশ যাওয়ার অনুমতি প্রসঙ্গে আবারও জোরালো দাবী জানালেন এম পি মোশারফ প্রবীন সাংবাদিক সরওয়ারের মৃত্যুতে জাতীয় সাংবাদিক সংস্থা’র শোক গাবতলীতে ৩দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ কার্যক্রমের সমাপনী অনুষ্ঠিত মরহুম আজম খানের সহধর্মিনীর সুস্থ্যতা কামনায় গাবতলীর দূর্গাহাটা ২নং ওয়ার্ড আ’লীগের উদ্যোগে দোয়া সোনাতলায় বাঁশহাটা গ্রামে গৃহবধুকে উত্যক্ত করার জেরে মারপিটে অটোচালক আহত বগুড়ায় আবু ত্ব-হা আদনান নিখোঁজের প্রতিবাদে মানববন্ধন আজম খাঁনের স্ত্রী’র সুস্থতা কামনায় গাবতলী উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের দোয়া মাহফিল আন্তনগর লালমনি ও রংপুর ট্রেনের টিকিট সরবরাহ না থাকায় যাত্রীদের বিড়ম্বনা স্বীকার হজ্জ ও ওমরাহ পালন করতে গিয়ে কেউ যেন হয়রানির স্বীকার না হয় সে বিষয়ে জাতীয় সংসদে কথা বললেন–এম পি মোশারফ হোসেন কাহালুতে ৫টি গাঁজার গাছ সহ এক ব্যক্তি আটক

গাবতলীতে শিশু হানজালাল হত্যা মামলায় গ্রেফতারঃ ২

গাবতলীতে শিশু হানজালাল হত্যা মামলায় গ্রেফতারঃ ২

মুহাম্মাদ আবু মুসাঃ বগুড়া গাবতলীর রামেশ্বরপুর নিশুপাড়া (বটতলা) এলাকার ৬বছরের শিশু হানজালাল হত্যার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে ডিবি পুলিশ ২জনকে গ্রেফতার করেছে। ১৮মার্চ বৃহস্পতিবার রাতে থানা পুলিশের সহযোগিতায় ডিবি পুলিশের পরিদর্শক এমরান মাহমুদ তুহিন সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে অভিযান চালিয়ে তাদেরকে বাড়ি থেকে গ্রেফতার কর হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলো একই এলাকার আব্দুল জোব্বার প্রামানিকের ছেলে স্থানীয় বটতলায় পল্লী চিকিৎসক মন্জু মিয়া প্রামানিক (৩৫), দুলু মন্ডলের ছেলে সুজা মিয়া মন্ডল (২৩)। এ বিষয়ে স্থানীয় রামেশ্বরপুরদ ইউপি চেয়ারম্যান সেকেন্দার আলী ও ইউপি মেম্বার মানিক মিয়ার সাথে কথা বললে তাঁরা জানান, রাতে ডিবি পুলিশ ওই ২জনকে গ্রেফতার করে নিয়ে গেছে। এ ব্যাপারে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা বগুড়ার ডিবি পুলিশের পরিদর্শক এমরান মাহমুদ তুহিন এর সাথে কথা বললে তিনি ওই ২জনকে শিশু হানজালাল হত্যার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে গ্রেফতার করার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেছেন, আমাদের অভিযান চলমান রয়েছে। পরবর্তীতে আনুষ্ঠানিকভাবে জানানো হবে।

শিশু হানজালাল’র বাবা পিন্টু প্রামানিক মালয়েশিয়া থাকার কারনে মোবাইল ফোনে তাদের নিকট প্রথমে ২লাখ টাকা কর্জ চায় অপহরণকারীরা। এ বিষয়ে কোন কর্নপাত করা না হলে গত বছরের ১৩ডিসেম্বর বিকেলে শিশু হানজালাল বাড়ির পাশ্বে খেলতে গেলে নিখোঁজ হয়ে যায়। তার পর আত্বীয় স্বজনসহ বিভিন্নস্থানে খোঁজাখুজি করে না পাওয়ায় ওই দিনগত রাতেই গাবতলী মডেল থানায় সাধারণ ডায়েরী (জিডি) করেন। কিন্তু এর পর থেকে অপহরণকারীরা মোবাইল ফোনের মাধ্যমে ৫লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবী করে। বিষয়টি আইন শৃঙ্খলা বাহিনীকে জানালেও কোন ফল হয়নি বলে শিশু হানজালাল’র মা তাসলিমা বেগম ক্ষোভে আহাজারী করে বলেন। এর পর গত ২১জানুয়ারী/২১ বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত আনুমানিক সাড়ে ৮টায় তাদের বাড়ির পাশে একটি পুকুরে হাত পা বাধা বস্তাবন্দি অবস্থায় শিশুটির লাশ ফেলে রেখে অভিভাবকের কাছে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে জানিয়ে দেয় অপহরণকারীরা।

এর পর শিশুর পরিবার থানা পুলিশসহ বিভিন্ন লোকজনকে জানালে ওই পুকুরে গিয়ে লাশটি দেখা যায়। পরে রাত আনুমানিক সাড়ে ৯টায় পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। পরের দিন শুক্রবার লাশের ময়না তদন্ত শেষে দাফন সম্পান্ন করা হয়। এ ঘটনায় নিহত শিশুপুত্র’র বাবা পিন্টু প্রামানিক বাদী হয়ে অজ্ঞাত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করলে পুলিশ কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি। এমনকি হত্যা ক্লু উদ্ধার করতে ব্যর্থ হয়। তবে যে মোবাইল ফোন দিয়ে ৫লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবী করার হয়েছিল সেই মোবাইল ফোন রেস্ট্রিশনকারী নেশাগ্রস্থ একজন প্রতিবন্ধী ভিক্ষুককে পুলিশ গ্রেফতার করে জেলা হাজতে পাঠিয়ে দেন। গাবতলী থানা পুলিশ বহু চেষ্ঠা করেও ব্যর্থ হলে পরে মামলাটি বগুড়া ডিবি পুলিশকে দেয়া হয়। অবশেষে বগুড়ার ডিবি পুলিশই এই মামলার ক্লু উদ্ধার করতে মাঠে নামলে তা সফল হওয়ার দ্বারপ্রান্তে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

শেয়ারকরুন: