শনিবার, ২৪ Jul ২০২১, ০৬:৩৪ পূর্বাহ্ন

নোটিশ
আমাদের ওয়েব সাইটে আপনাকে স্বাগতম.........
শিরোনাম >>>
বিএনপির দুস্থ নেতাকর্মী, এতিমখানা ও নব মুসলিমকে মাংস প্রদান বেগম খালেদা জিয়ার সুস্থ্যতা কামনা করে গাবতলীর উজগ্রামে দোয়া মাহফিল ১১০টি পরিবারের মুখে হাসি ফুটালেন বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মওদুদ আহম্মেদ জাতীয় সাংবাদিক সংস্থা’র সাবেক মহাসচিব সাজ্জাদুল কবির মারা গেছেন নেতৃবৃন্দ’র শোক গাবতলীর মহিষাবান ইউনিয়ন পরিষদে ভিজিএফ’র চাল বিতরণ জাতীয় সাংবাদিক সংস্থা’র জেলা সদস্য বাবু’র পিতার মৃত্যুতে নেতৃবৃন্দ’র শোক সোনাতলায় দিনদিন বেরেই চলেছে চোরের উপদ্রব-কৌশলে আবারো ইজিবাইক চুড়ি নন্দীগ্রামে নিজস্ব অর্থায়নে অসহায়দের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করলেন এম পি মোশারফ হোসেন কালাই ইউনিয়ন পরিষদে ভিজিএফের চাল বিতরণ করলেন ইউ পি চেয়ারম্যান হান্নান বগুড়ায় পুকুরে ডুবে বৃদ্ধের মৃত্যু

জমি-জমা সংক্রান্ত বিরোধ সোনাতলায় মারপিট মামলার আসামীদের গ্রেফতারের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন

জমি-জমা সংক্রান্ত বিরোধ সোনাতলায় মারপিট মামলার আসামীদের গ্রেফতারের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন

বদিউদ-জ্জামান মুকুল,ষ্টাফ রিপোর্টারঃ বগুড়ার সোনাতলায় ৩ জুলাই শনিবার জমি-জমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে মারপিট মামলার আসামীদের গ্রেফতারের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।
সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন, উপজেলার পূর্ব তেকানী গ্রামের মৃত আলতাব হোসেনের ছেলে আব্দুল লতিফ শাহীন।
তিনি তার লিখিত বক্তব্যে বলেন, জমি-জমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে তার প্রতিপক্ষ একই এলাকার মৃত সিদ্দিক হোসেন আকন্দের ছেলে সাইদুল ইসলাম পুতি ও তার লোকজন পূর্ব পরিকল্পনা মোতাবেক দলবদ্ধ হয়ে গত ৩০ জুন ২০২১ইং তারিখে দুপুরে সংঘবদ্ধ হয়ে আমাকে হত্যার উদ্দেশ্যে আমার বসতবাড়ির আঙিনায় এসে আমাকে অকর্থ্য ভাষায় গালিগালাজ সহ আমাকে বেদম মারপিট করে। এ সময় আমার স্ত্রী এগিয়ে এলে প্রতিপক্ষের লোকজন তাকে মাটিতে ফেলে দিয়ে লাঠি দিয়ে আঘাত করে এবং শ্লীলতাহানীর চেষ্টা করে।

এ সময় আমার বড় ভাইয়ের স্ত্রী সাবিনা ইয়াসমিন এগিয়ে এলে প্রতিপক্ষের লোকজন তাকেও বেদম মারপিট করে। এমনকি ৩৫ হাজার টাকা মূল্যের একটি স্বর্নের চেইন তার গলা থেকে ছিনিয়ে নিয়ে যায়। এ সময় আমার ভাতিজা ইফতে খায়রুল ইসলাম সোহান তার মাকে বাঁচাতে এগিয়ে এলে প্রতিপক্ষের লোকজন তাকেও মারপিট করে। এ সময় স্থানীয় লোকজন এগিয়ে এলে হামলাকারীরা তাদের ভয়ভীতি প্রদর্শন করে এলাকা ত্যাগ করে।
এ বিষয়ে গত ১ জুলাই ২০২১ইং তারিখে ৭জনকে আসামী করে সোনাতলা থানায় মামালা দায়ের করা হয়। পুলিশ অদ্যবধি কোন আসামীকে গ্রেফতার করতে পারেনি। প্রতিপক্ষের হামলায় আহতরা বর্তমানে সোনাতলা উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে।
সাংবাদিক সম্মেলনের মাধ্যমে বিষয়টি প্রশাসনের সুদৃষ্টির পাশাপাশি অভিযুক্তদের দ্রæত গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনা দাবি করা হয়েছে। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, মোশারফ হোসেন, আব্দুল হাই সহ অর্ধ শতাধিক গ্রামবাসী।

শেয়ারকরুন: