রবিবার, ২০ Jun ২০২১, ০১:৩৮ অপরাহ্ন

নোটিশ
আমাদের ওয়েব সাইটে আপনাকে স্বাগতম.........
শিরোনাম >>>
মহিলা ক্রিকেটদলের অধিনায়ককে গাবতলীতে ফুলেল শুভেচ্ছা আদমদীঘিতে বিলুপ্তীর পথে ঐতিহ্যবাহী বাঁশ শিল্প কাহালুতে ২য় গর্যায় ৩০ট গৃহহীন পরিবার পাচ্ছে দূর্যোগ সহনীয় বাসগৃহ বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ডে পদ পেলেন পত্নীতলার রুবাইত হাসান সান্তাহারে ইয়াবাসহ এক মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার কাহালু পৌর মেয়রকে সচিবালয়ে প্রবেশের কার্ড করে নিয়ে দিলেন এম পি মোশারফ হোসেন কাহালুতে চোর সন্দেহে যুবককে বাড়ী থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতন কাহালুতে ৫ জুয়াড়ী আটক ডাঃ জোবাইদা’র জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে গাবতলীতে ছাত্রদলের দোয়া মাহফিল ও খাবার বিতরণ গাবতলীর বাগবাড়ীতে মসজিদ নির্মাণ কাজের উদ্ধোধন করলেন ডাঃ পাভেল

দ্বিতীয় বারের মতো সোনাতলায় জনবসতিপূর্ণ এলাকায় শ্যালো মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলন

দ্বিতীয় বারের মতো সোনাতলায় জনবসতিপূর্ণ এলাকায় শ্যালো মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলন

বদিউদ-জ্জামান মুকুল,ষ্টাফ রিপোর্টারঃ বগুড়ার সোনাতলায় ঘনবসতিপূর্ণ এলাকা থেকে শ্যালো মেশিন দিয়ে ভূগর্ভস্থ থেকে অবাধে বালু উত্তোলন করার অভিযোগ উঠেছে। এতে করে ওই এলাকার বাড়িঘর হুমকির মুখে পড়েছে। তবে স্থানীয় প্রশাসন বালু উত্তোলন করতে নিষেধ করলেও এখনও বালু তোলার সরঞ্জামাদি ওই স্থান থেকে সরিয়ে নেওয়া হয়নি।
অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, বগুড়ার সোনাতলা উপজেলার পাকুল্লা ইউনিয়নের পদ্মপাড়া গ্রামের মৃত মাহবুবুর রহমান মজনুর ছেলে মনিরুজ্জামান (সুকুল) তার লিখিত অভিযোগে উল্লেখ করেছেন, ওই এলাকার জনবসতিপূর্ণ এলাকা থেকে মোঃ ইলিয়াস আকন্দ বুলু নামের এক ব্যক্তি বাড়ি করার অযু হাতে শ্যালো মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলন করছেন। এতে করে হুমকির মুখে পড়েছে আশপাশের প্রায় শতাধিক বাড়িঘর।
স্থানীয় এলাকাবাসী আরও জানান, জনৈক ইলিয়াস আকন্দ বুলু শ্যালো মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলনের ফলে সংশ্লিষ্ট স্থানটি ৪০/৫০ ফুট গভীর হয়েছে। যার চারপাশে রয়েছে বসতবাড়ি। প্রাকৃতিক দূর্যোগ ভূমিকম্প কিংবা বড় ধরনের ঝড়বৃষ্টি ও বন্যার ফলে আশপাশের বাড়িঘর দেবে যাওয়ার আশংকা করছেন স্থানীয়রা।
এ বিষয়ে ১১ ফেব্রুয়ারী বৃহস্পতিবার জনৈক ইলিয়াস আকন্দ বুলুর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, তার নিজের জমি থেকে তিনি শ্যালো মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলন করে রাস্তা সংলগ্ন স্থানে বাড়ি নির্মাণ করবেন।
এ বিষয়ে স্থানীয় আব্দুল মোমিন, সাবলু মিয়া জানান, জনবসতিপূর্ণ এলাকা থেকে শ্যালো মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলনের ফলে আশপাশের বাড়িঘর দেবে যাওয়ার আংশকা রয়েছে।
এ বিষয়ে জেলা প্রশাসক, উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও সোনাতলা থানায় অভিযোগ দাখিল করা হয়েছে।
বিষয়ে সোনাতলা থানার ওসি রেজাউল করিম রেজার সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, এ বিষয়ে স্থানীয় লোকজনের অভিযোগের প্রেক্ষিতে বালু উত্তোলন করতে নিষেধ করা হয়েছে।
উল্লেখ্য, স্থানীয় ভুক্তভোগী মহল ভ্রাম্য আদালত পরিচালনা করে বালু উত্তোলনের সরঞ্জামাদি জব্দ সহ উত্তোলনকারীর বিরুদ্ধে উপযুক্ত শাস্তির দাবি করা হয়েছে।

শেয়ারকরুন: