মঙ্গলবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০২:১৫ অপরাহ্ন

নোটিশ
আমাদের ওয়েব সাইটে আপনাকে স্বাগতম.........
শিরোনাম >>>
প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন উপলক্ষে বগুড়ার সোনাতলায় ৮টি ভেন্যুতে কোভিড-১৯ টিকা দেওয়া হবে মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে সৈয়দ আহমদ কলেজ মাঠে বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব ফুটবল টুর্ণামেন্টের উদ্বোধন করোনায় বিশেষ অবদানে কয়েকজনকে সম্মাননা প্রদান বগুড়ায় তথ্য অধিকার দিবস উপলক্ষে সুজন এর সভায় এসপি সুদীপ কুমার কৃষিতে উন্নত প্রযুক্তি ব্যবহারের ফলে দেশ আজ খাদ্য স্বয়ংসম্পূর্ণ -সাহাদারা মান্নান এমপি গাবতলীতে যুবদল নেতা সোহাগ অসুস্থ্য ॥ টিএমএসএস হাসপাতালে ভর্তি সোহেল সভাপতি, মনিন্দ্র সম্পাদক গাবতলীর সুখানপুকুর ৭নং ওয়ার্ড যুবলীগের সম্মেলন বগুড়ায় ২৯৭ তম রোভার স্কাউট লিডার ওরিয়েন্টেশন কোর্স’২১ অনুষ্ঠিত গাবতলীর কাগইলে প্রতিন্ধীদের কল্যাণে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত গাবতলীর দক্ষিনপাড়া লাংলু তরুণ সংঘ উন্নয়ন ক্লাব উদ্বোধন কাহালুর ডোমরগ্রাম কেন্দ্রীয় বড় জামে মসজিদের ছাদ ঢালাই কাজের উদ্বোধন

ধর্ষণ মামলার আসামি কারাগারে বিয়ে করে জামিন

ধর্ষণ মামলার আসামি কারাগারে বিয়ে করে জামিন

অনলাইন ডেস্কঃ ফেনীর কারাগারে নির্যাতিতাকে বিয়ে করায় ধর্ষণ মামলার আসামি জহিরুল ইসলাম ওরফে জিয়া উদ্দিনের জামিন মঞ্জুর করেছেন হাইকোর্ট। আদালত তাকে এক বছরের জামিন দিয়েছেন। এখন তার মুক্তি পেতে বাধা নেই বলে জানিয়েছেন আইনজীবী।
সোমবার ৩০ নভেম্বর হাইকোর্টের বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ আদেশ দেন। আদালতে এদিন আসামি জহিরুল ইসলাম ওরফে জিয়া উদ্দিনের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী ফারুক আলমগীর চৌধুরী। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল সারওয়ার হোসেন বাপ্পী।
এর আগে গত ১৯ নভেম্বর ফেনীর কারাগারে আসামি জিয়া উদ্দিনের সঙ্গে বিয়ে হয় ওই নারীর। মামলার আসামি জহিরুল ইসলাম ওরফে জিয়া উদ্দিনের বাড়ি ফেনীর সোনাগাজীর ৮ নম্বর চরদরবেশ ইউনিয়নের দক্ষিণ-পশ্চিম চরদরবেশ গ্রামে।
গত ২৭ মে ভোরে একই ঘর থেকে জিয়া ও অভিযোগকারী নারীকে আটক করে গ্রামবাসী। স্থানীয়রা তাদেরকে বিয়ে দিতে চাইলে ছেলের বাবা আবু সুফিয়ান মেম্বার রাজি হননি। ওইদিনই মেয়েটি সোনাগাজী থানায় ধর্ষণ মামলা করেন।
মামলার পরপরই পুলিশ গ্রেফতার করে অভিযুক্ত জিয়াকে। পরে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়। এরপর বিচারিক (নিম্ন) আদালতে জামিন চেয়ে ব্যর্থ হয়ে হাইকোর্টে জামিন আবেদন করেন তিনি। এর আগে গত ১ নভেম্বর হাইকোর্টের বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের বেঞ্চ ওই মেয়েকে বিয়ে করলে জামিনের বিষয়টি বিবেচনা করা হবে বলে আদেশ দেন। ওই আদেশের পরই ফেনী জেলা কারাগারে তাদের বিয়ে সম্পন্ন হয়।
জিয়া ওই নারীকে বিয়ে করার শর্তে জামিনের বিষয়টি আদালতে উত্থাপন করলে হাইকোর্ট জিয়াকে এক বছরের জামিন দেন।

শেয়ারকরুন: