শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৭:২৯ অপরাহ্ন

নোটিশ
আমাদের ওয়েব সাইটে আপনাকে স্বাগতম.........
শিরোনাম >>>
গাবতলীতে শহীদ মুক্তিযোদ্ধাদের মাগফিরাত ও জীবিতদের কল্যাণ কামনায় দোয়া মাহফিল গাবতলীর নেপালতলী ইউনিয়ন মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড’র কমিটি অনুমোদন বগুড়া সদরের নিশিন্দারা ইউনিয়নের দশটিকায় ফুটবল টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত সোনাতলা-গাবতলী সড়কে  ট্রাকের চাপায় পৃষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলেই মোটরসাইকেল আরোহী মৃত্যু হয়েছে মাননীয় স্পিকার শহীদ জিয়ার লাশ কবরে আছে কি নেই এতদিন পরে তা কেন সংসদে আলোচনা হচ্ছে –এম পি মোশারফ হোসেন প্রধান শিক্ষককে লাঞ্ছিত করার প্রতিবাদে গাবতলীতে শিক্ষকদের মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান গাবতলীতে দর্জি শ্রমিকদের মাঝে ত্রাণের চাল বিতরণ সোনাতলায় খামারীদের প্রশিক্ষণে বিভাগীয় পরিচালকের পরিদর্শন কাহালুতে “প্রতিবন্ধী নারীর প্রতি সহিংসতা দূরীকরণে” উপজেলা সমন্বয় কমিটির মাসিক সভা গাবতলীতে নিখোঁজ হওয়ার ৩দিন পর এক মহিলার লাশ উদ্ধার

বগুড়া সদরের শেখেরকোলায় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ভাংচুর মারপিটঃ থানায় অভিযোগ

বগুড়া সদরের শেখেরকোলায় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ভাংচুর মারপিটঃ থানায় অভিযোগ

বগুড়া জেলা প্রতিনিধিঃ সদর উপজেলার শেখেরকোলার ইউনিয়নের মহিষবাথান গ্রামে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে বাড়িতে ভাংচুর ও মারপিটের ঘটনা ঘটেছে। এবিষয়ে বগুড়া সদর থানায় অভিযোগ করেছে ভুক্তভোগী পরিবার।

আহতরা শজিমেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। অভিযোগ ও এলাকাবাসী সুত্রে জানা গেছে, রবিবার সকালে সদর উপজেলাধীন শেখেরকোলা ইউনিয়নের মহিষবাথান আকন্দপাড়ায় দুই শিশুর মাঝে খেলতে নিয়ে ঝগড়ার সৃষ্টি হলে তা দুই পরিবারের ঝগড়ায় রুপ নেয়। তবে সাময়িক মিমাংসা হলেও কিছুক্ষণ পর পরিকল্পিতভাবে হামলা হয়েছে বলে অভিযোগ করেন আব্দুল কাদের।

শিশুদের ঝগড়াকে কেন্দ্র করে মহিষবাথান আকন্দপাড়ার এলাকার আব্দুস ছাত্তারের পুত্র আব্দুল গোফ্ফার ও তার ছেলেরা সঙ্গীয় ৪/৫ জন হঠাৎ করেই দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে কলিম উদ্দিন এর বাড়িতে অনধিকার প্রবেশ করে তার স্ত্রী পিয়ারা বেগমকে গালিগালাজ ও মারপিট করতে থাকে।

এমন সময় ভিক্টিম পেয়ারা বেগমের চিৎকার শুনে কলিম উদ্দিন, তার পুত্র আব্দুল কাদেরসহ পরিবারের সকলে ঘর বের হয়ে এসে বাচানোর চেস্টা করলে তাদের হাতে থাকা লাঠি, কাঠের বাটাম দ্বারা এলোপাথারি মারপিট করা হয়। এসময় বিবাদীরা ঘরে ঢুকে আসবাবপত্র ভাংচুর করে।

এক পর্যায়ে বাদীর ঘরে রাখা গচ্ছিত ১ লক্ষ ১২ হাজার টাকা লুট করে নেয়। এমতাবস্থায় তাদের চিৎকারে এলাকাবাসী ছুটে আসলে হামলাকারীরা পুনরায় বাদী ও তার পরিবারের সদস্যদের জীবননাশের হুমকি দিয়ে পালিয়ে যায়।

ঘটনাস্থলে উপস্থিত এলাকাবাসী তাৎক্ষনিক আহতদের উদ্ধার করে শজিমেক হাসপাতালে ভর্তি নিয়ে করা হয়। ব্যাপারে কলিম উদ্দিনের পুত্র আব্দুল কাদের বাদী হয়ে বগুড়া সদর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।

শেয়ারকরুন: