সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৮:২৪ পূর্বাহ্ন

নোটিশ
আমাদের ওয়েব সাইটে আপনাকে স্বাগতম.........
শিরোনাম >>>
গাবতলীতে মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকদের সাথে মতবিনিময় প্রধান অতিথি রাগেবুল আহসান রিপু গাবতলীতে নৌকা বাইচ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত মোকামতলায় এলপিজি অটো গ্যাস ষ্টেশনের উদ্বোধন কাহালুর পাইকড় ইউনিয়নে সরকারি খরচে আইনগত সহায়তা প্রদান বিষয়ক প্রাতিষ্ঠানিক গণশুনানী অনুষ্ঠিত ডোমারে সড়ক দূঘর্টনায় যুবক নিহত গাবতলীতে শিক্ষক সুজাকে লাঞ্ছিত করায় সুজনের নিন্দা গাবতলীতে শহীদ মুক্তিযোদ্ধাদের মাগফিরাত ও জীবিতদের কল্যাণ কামনায় দোয়া মাহফিল গাবতলীর নেপালতলী ইউনিয়ন মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড’র কমিটি অনুমোদন বগুড়া সদরের নিশিন্দারা ইউনিয়নের দশটিকায় ফুটবল টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত সোনাতলা-গাবতলী সড়কে  ট্রাকের চাপায় পৃষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলেই মোটরসাইকেল আরোহী মৃত্যু হয়েছে

বিভিন্ন দপ্তরে কাজে আসা লোকজনদেরকে ভোগান্তি পোহাতে হয় সোনাতলায় সরকারী কর্মকর্তা ও জনপ্রতিনিধি শূন্য একদিন!

বিভিন্ন দপ্তরে কাজে আসা লোকজনদেরকে ভোগান্তি পোহাতে হয় সোনাতলায় সরকারী কর্মকর্তা ও জনপ্রতিনিধি শূন্য একদিন!

বদিউদ-জ্জামান মুকুল,ষ্টাফ রিপোর্টারঃ বগুড়ার সোনাতলায় সরকারী কর্মকর্তা ও জনপ্রতিনিধি শূন্য একদিন ছিল ২৬ নভেম্বর বৃহস্পতিবার। ওইদিন উপজেলার বিভিন্ন প্রান্ত থেকে দাপ্তরিক কাজে আসা লোকজনকে বিড়ম্বনায় স্বীকার হতে হয়। ২৬ নভেম্বর বৃহস্পতিবার বগুড়ার সোনাতলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাদিয়া আফরিন সহ সরকারী সকল দপ্তরের কর্মকর্তা এবং উপজেলা চেয়ারম্যান এড. মিনহাদুজ্জামান লীটন সহ ইউনিয়ন পরিষদের জনপ্রতিনিধিরা গতকাল বগুড়া মম ইন হোটেলে এক সভায় মিলিত হন। এজন্য গোটা উপজেলা পরিষদ ছিল সরকারী কর্মকর্তা ও জনপ্রতিনিধি শূন্য। একটি সূত্রে জানা গেছে, গতকাল বৃহস্পতিবার বগুড়ার সোনাতলা উপজেলা পরিষদের মাসিক সমন্বয় কমিটির সভার দিনক্ষন নির্ধারণ ছিল। জনৈক একজন জনপ্রতিনিধি সবাইকে ভুড়ি ভোজ করার জন্য সমন্বয় কমিটির সভার আয়োজন করে বগুড়া মম ইন হোটেলে। তবে কাগজে কলমে ওই সভা সোনাতলায় দেখানো হলেও বাস্তবে সভাটি অনুষ্ঠিত হয় ওই হোটেলে। ওই সভায় ৫৫ জন সরকারী কর্মকর্তা ও জনপ্রতিনিধি উপস্থিত ছিলেন। দুপুরে তাদেরকে খাওয়ানো হয় চায়নিজ খাবার। এজন্য ওই উপজেলার পাকুল্লা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জুলফিকার রহমান শান্তকে বিল গুণতে হয় প্রায় ৬০ হাজার টাকা।

২৬ নভেম্বর বৃহস্পতিবার সকালে বিভিন্ন দপ্তরের সরকারী গাড়িতে উপজেলা পর্যায়ের সর্বোচ্চ পদের অধিকারী কর্মকর্তা ও জনপ্রতিনিধিদের একসাথে উপজেলা সদর ত্যাগ ও বগুড়ায় যাওয়ার বিষয়টি সোনাতলায় টক অব দ্যা টাউনে পরিনত হয়েছিল।
এদিকে বৃহস্পতিবার বগুড়ার সোনাতলা উপজেলার বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসা লোকজনকে দাপ্তরিক কাজে বিড়ম্বনার স্বীকার হতে হয়েছে।
এ বিষয়ে পাকুল্লা ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ জুলফিকার রহমান শান্ত জানান, যেহেতু পরিষদের মেয়াদকাল শেষের দিকে তাই সবাইকে খাওয়ানোর জন্য হোটেল মম ইন এ ডাকা হয়েছিল।
এ বিষয়ে উপজেলা প্রকৌশলী মোঃ রাশেদ ইমরানের সাথে সন্ধ্যায় মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, ২৬ নভেম্বর বৃহস্পতিবার আমাদের মাসিক মিটিং বগুড়া মম ইন হোটেলে অনুষ্ঠিত হয়েছে।
এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাদিয়া আফরিনের সাথে মোবাইল ফোনে সন্ধ্যা ৬টা ৫২ মিনিটে টেলিফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি প্রথমে সোনাতলায় থাকার কথা বললেও পরবর্তীতে হোটেল মম ইনে একত্রিত হওয়ার কথা স্বীকার করেন। সেখানে এলাকার বিভিন্ন উন্নয়মূলক কাজ নিয়ে কর্মকর্তাদের সাথে মতবিনিময় সভার কথাও স্বীকার করেন।

শেয়ারকরুন: