শনিবার, ২৪ Jul ২০২১, ০৭:২১ পূর্বাহ্ন

নোটিশ
আমাদের ওয়েব সাইটে আপনাকে স্বাগতম.........
শিরোনাম >>>
বিএনপির দুস্থ নেতাকর্মী, এতিমখানা ও নব মুসলিমকে মাংস প্রদান বেগম খালেদা জিয়ার সুস্থ্যতা কামনা করে গাবতলীর উজগ্রামে দোয়া মাহফিল ১১০টি পরিবারের মুখে হাসি ফুটালেন বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মওদুদ আহম্মেদ জাতীয় সাংবাদিক সংস্থা’র সাবেক মহাসচিব সাজ্জাদুল কবির মারা গেছেন নেতৃবৃন্দ’র শোক গাবতলীর মহিষাবান ইউনিয়ন পরিষদে ভিজিএফ’র চাল বিতরণ জাতীয় সাংবাদিক সংস্থা’র জেলা সদস্য বাবু’র পিতার মৃত্যুতে নেতৃবৃন্দ’র শোক সোনাতলায় দিনদিন বেরেই চলেছে চোরের উপদ্রব-কৌশলে আবারো ইজিবাইক চুড়ি নন্দীগ্রামে নিজস্ব অর্থায়নে অসহায়দের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করলেন এম পি মোশারফ হোসেন কালাই ইউনিয়ন পরিষদে ভিজিএফের চাল বিতরণ করলেন ইউ পি চেয়ারম্যান হান্নান বগুড়ায় পুকুরে ডুবে বৃদ্ধের মৃত্যু

সম্ভাব্য প্রার্থীকে মৃত বানানোর অভিযোগ সাবেক মেম্বারের বিরুদ্ধে

সম্ভাব্য প্রার্থীকে মৃত বানানোর অভিযোগ সাবেক মেম্বারের বিরুদ্ধে

আবু রায়হান রানা,শেরপুর (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ বগুড়ার শেরপুর উপজেলার বনমরিচা গ্রামে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের এক সম্ভাব্য ইউপি সদস্য প্রার্থীকে মৃত বানিয়ে ভোটার তালিকা থেকে নাম কর্তনের অভিযোগ উঠেছে ওই এলাকার সাবেক মেম্বার (ইউপি সদস্য) এর বিরুদ্ধে। এ নিয়ে এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।
ভুক্তভোগী আওয়ামী লীগ নেতা মো.বদিউজ্জামান বদি জানান, আমি গাড়ীদহ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ২নং ওয়ার্ড কমিটির সাধারণ সম্পাদক। বিগত দিনেও এই ওয়ার্ড থেকে নির্বাচন করেছি আগামীতে ইউপি সদস্য পদে নির্বাচন করার জন্য আশা করছি। কিন্তু সম্প্রতি উপজেলা নির্বাচন অফিসে ভোটার তালিকায় নাম যাচাই করতে গিয়ে দেখি আমার নাম মৃত হিসাবে কর্তন করা হয়েছে। পরে খোঁজ নিয়ে দেখতে পাই এলাকার সাবেক মেম্বার আব্দুস সোবাহান এবং বর্তমান সংরক্ষিত মেম্বার হেলেনা বিবি যোগসাজশ করে ২০১৯ সালে এক মৃত ব্যক্তির নামের সাথে আমার জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর জুড়ে দিয়ে আমার নাম কর্তন করেছেন। এ ঘটনায় আমি নির্বাচন অফিসের পাশাপাশি শেরপুর থানায় ওই দুই জনের নামে লিখিত অভিযোগ করেছি।
এ ব্যাপারে অভিযুক্ত গাড়ীদহ ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের সাবেক সদস্য মো. আব্দুস সোবাহান জানান, আমি তার নাম কাটার জন্য কোন সুপারিশ করিনি। নির্বাচনকে সামনে রেখে ফায়দা হাসিল করার জন্য আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ আনা হয়েছে।
১নং সংরক্ষিত মহিলা ইউপি সদস্য মোছা. হেলেনা বিবি জানান, ভোটার তালিকায় নাম কর্তনের জন্য যে সুপারিশ আমার নামে করা হয়েছে আমি তার সাথে জড়িত নই। দোষীদের শাস্তি দাবী করছি।
এ ব্যাপারে শেরপুর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোছা. আছিয়া খাতুন জানান, ২০১৭ সালে বনমরিচা গ্রামের আব্দুল মোতালেব মৃত্যুবরণ করেন। কিন্তু ভুলক্রমে তার জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বরের জায়গায় বদিউজ্জামানের নম্বর থাকায় তালিকা থেকে নাম কেটে গেছে। একটি ডিজিট ভুল হওয়ায় এমন সমস্যা হয়েছে। আমরা আবারো ওই সম্ভাব্য ইউপি সদস্য প্রার্থীর নাম প্রতিস্থাপনের জন্য সুপারিশ করেছি। আশা করছি কোন সমস্যা হবে না তিনি নির্বাচনে অংশগ্রহণের সুযোগ পাবেন।

শেয়ারকরুন: