বুধবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২১, ১০:৪৪ অপরাহ্ন

নোটিশ
আমাদের ওয়েব সাইটে আপনাকে স্বাগতম.........
শিরোনাম >>>
বগুড়ায় নূরানী এইচকিউ মডেল মাদ্রাসার তাফসীরুল কুরআন মাহফিল অনুষ্ঠিত আত্মহননঃ  একূল-ওকূল হারাতে হয় প্রাচীর নির্মাণের সৃষ্ঠজটিলতা নিরসনকল্পে গাবতলীর সোন্দাবাড়ী হাইস্কুলে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত বগুড়ার শিবগঞ্জের বাঘমারা দাখিল মাদ্রাসার সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন সাংবাদিক আতিক রহমান গাবতলীতে অভ্যন্তরীণ আমন ধান-চাল সংগ্রহের উদ্বোধন করলেন রবিন খান রাজধানীর রামপুরায় বাসচাপায় এক শিক্ষার্থীর মৃত্যু চালক আটক বগুড়া র‌্যাবের অভিযানে ৫৮১ পিস ট্যাপেন্টাডল ট্যাবলেটসহ ১ জন মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার কাহালুতে ১ জন চেয়ারম্যান প্রার্থী সহ ৫ জন প্রার্থীর মনোনয়ন পত্র বাতিল কাহালু খাদ্য গুদামে আমন ধান ও চাল সংগ্রহের উদ্বোধন বিএনপি নেতা মতি’র মাগফিরাত কামনায় গাবতলীর সোনারায় ইউনিয়ন বিএনপির দোয়া

সোনাতলায় বিদ্যুৎ বিল বকেয়া থাকায় গ্রাহকের মিটার খুলে নিয়ে গেলো কর্তৃপক্ষঃ

সোনাতলায় বিদ্যুৎ বিল বকেয়া থাকায় গ্রাহকের মিটার খুলে নিয়ে গেলো কর্তৃপক্ষঃ

ফয়সাল আহম্মেদঃ বগুড়ার সোনাতলায় বিদ্যুৎ বিল বকেয়া থাকায় মোঃ রাজু নামের এক গ্রাহকের মিটার খুলে নিয়ে যায় কর্তৃপক্ষ। এবিষয়ে ঐ গ্রাহক উপজেলার পৌর এলাকার চমরগাছা গ্রামের মৃত আফসার আলীর ছেলে রাজু আহম্মেদ জানায়, পারিবারিক ভাবে আর্থিক সমস্যার কারনে গত পাঁচ(৫)মাস যাবত তিনি তার ব্যবহৃত বানিজ্যিক মিটারের বিদ্যুৎ বিল দিতে পারেনা। এদিকে উক্ত বিল বকেয়া থাকায় গতকাল ১৬’ই নভেম্বর সোমবার বগুড়া পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২ সোনাতলা জোনাল অফিসের মিটার সুপারভাইজার মোঃ নুরুল ইসলাম ও লাইনক্রু মোঃ ফজলুল হক তার বাড়িতে গিয়ে ঐ মিটারের সংযোগটি বিচ্ছিন্ন করে। এসময় একই এলাকার মোঃ নজমুল হোসেন মন্ডলের ছেলে ও সোনাতলা পল্লী বিদ্যুৎ অফিসের ইলেকট্রিসিয়ান মোঃ বাদল মিয়া তার অফিসের লোকজনদের রাজুর বাড়ি দেখিযে দেয়ায় তাদের উভয়ের মধ্যে তর্কবিতর্ক হয়। সেই সুত্রধরে ইলেকট্রিশিয়ান বাদল মিয়া গ্রাহক রাজুর নামে পল্লী বিদ্যুৎ অফিসের কর্তৃপক্ষ বরাবরে একটি লিখিত অভিযোগ করে। সেই অভিযোগের মুলে ১৭’ই নভেম্বর মঙ্গলবার দুপুরে সোনাতলা পল্লী বিদ্যুৎ অফিসের (E.C) মোঃ নাজমুস সাদাত, (A.G.E) মোঃ গোলাম মোস্তফা এবং (W.C) আবু সাঈদ কয়েকজন ইলেকট্রিশিয়ানদের সাথে নিয়ে এলাকায় গিয়ে রাজুর ব্যাহৃত বানিজ্যিক মিটার খুলে নিয়ে আসে। এসময় গ্রাহক রাজু সময় চেয়ে তাদেরকে উক্ত কাজে নিষেধ করলে তবুও তারা মিটারটি খুলে নিয়ে যায় বলেও জানায় রাজু। এদিকে মিটার খুলে নিয়ে যাওয়ার সময় ঐ তিনজন কর্মকর্তার সাথে কথা বললে তারা জানায়, অভিযোগের মুলে ঐ গ্রাহককে সতর্ক করার জন্য মিটারটি খুলে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। পরবর্তিতে উভয়কে অফিসে ডেকে সমঝোতার মাধ্যমে বিষয়টির মিমাংশা করা হবে।

শেয়ারকরুন: