বৃহস্পতিবার, ০৫ অগাস্ট ২০২১, ০৫:০৩ অপরাহ্ন

নোটিশ
আমাদের ওয়েব সাইটে আপনাকে স্বাগতম.........
শিরোনাম >>>
শাজাহানপুরের খোট্রাপাড়া’য় জিয়াউর রহমান ফাউন্ডেশনের সহযোগিতায় সাজ্জাদুজ্জামান জয়ের পরিচালনায় করোনা হেলথ ক্যাম্প অনুষ্ঠিত গাবতলীতে পত্রিকা বিক্রেতাকে হত্যার হুমকি; থানায় অভিযোগ গাবতলীতে স্কুল ছাত্রীকে ইভটিজিং থানায় ৩ জনের নামে অভিযোগ গাবতলীতে এক অন্ধ’র বাড়ি পুড়েছে খোলা আকাশের নিচে তাদের বসবাস সরকার আসে, সরকার যায় তাদের নেতাকর্মী প্রতিশ্রুতি দেয়- সোনাতলায় ৩শ’ ফুট কাঁচা রাস্তা কাঁচাই রয়ে গেল জনপ্রতিনিধিকে খুশি করতে না পারায়-৭৯ বছর বয়সেও বয়স্ক ভাতা ভাগ্য জোটেনি সুমতি রানীর কাহালুতে ট্রাক চাপায় মোটর সাইকেল চালক নিহত কাহালুতে করোনার টিকাদান কর্মসূচী সফল করার লক্ষ্যে প্রস্তুতিমূলক সভা অনুষ্ঠিত লাখো মানুষের চলাচলে চরম দুর্ভোগ- গাবতলী-চৌকিরঘাট সড়কে অসংখ্যস্থানে গর্তের সৃষ্টি গাবতলীর কাগইলে জিয়াউর রহমান ফাউন্ডেশনের সহযোগিতায় সাজ্জাদুজ্জামান জয়ের পরিচালনায় করোনা হেলথ ক্যাম্প অনুষ্ঠিত

সোনাতলায় গরু ব্যবসায়ীর সাড়ে ১৩ লাখ টাকা নিয়ে এক ব্যক্তি উধাও

সোনাতলায় গরু ব্যবসায়ীর সাড়ে ১৩ লাখ টাকা নিয়ে এক ব্যক্তি উধাও

বদিউদ-জ্জামান মুকুল,ষ্টাফ রিপোর্টারঃ বগুড়ার সোনাতলায় গরু ব্যবসায়ীর সাড়ে ১৩ লাখ টাকা নিয়ে এক ব্যক্তি গা ঢাকা দিয়েছে। বিষয়টি এলাকা চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেছে।

এ বিষয়ে থানায় অভিযোগ করা হয়েছে।
অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, চট্টগ্রাম জেলার বায়জিদ বোস্তামি উপজেলার আহাম্মাদুরপুর রহমান এলাকার মৃত শাহ আলম হাজীর ছেলে গরু ব্যবসায়ী মোঃ নুরুল ইসলাম (৪৯), মোহাম্মদ আলী (৬২), মোনতাসের (২৮) ও মেহেদী হাসান নামের ৪ ব্যক্তি দীর্ঘদিন যাবত বগুড়ায় গরু ব্যবসা করে আসছে। তারা প্রতি কোরবানীর ঈদে বগুড়ার সোনাতলা উপজেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে গরু কিনে চট্টগ্রাম নিয়ে গিয়ে বিক্রি করে। তারই ধারাবাহিকতায় গত ৩ বছর ধরে ওই উপজেলার গোসাইবাড়ী গ্রামের পুটু সরকারের ছেলে মানিক মিয়া (৩২) এর সাথে গরু ব্যবসায়ীর পরিচিতি গড়ে ওঠে। এমনকি তাদের মধ্যে বন্ধুত্বপুর্ণ সম্পর্কের সৃষ্টি হয়। সেই সম্পর্কের সূত্র ধরে গত ৩ বছর যাবত ওই গরু ব্যবসায়ী মানিক মিয়ার বাড়ি থেকে গরু ব্যবসা চালিয়ে আসছিল। আসন্ন ঈদ-উল-আযহার ঈদকে সামনে রেখে ওই গরু ব্যবসায়ী মানিক মিয়ার বাড়িতে গরু কেনার জন্য অবস্থান নেয়। এ সময় মানিক ও তার পরিবারের সদস্যদের নিকট ওই গরু ব্যবসায়ী গরু কেনার জন্য ১৩ লাখ ৫০ হাজার টাকা গচ্ছিত রাখে। পরবর্তীতে গরু কিনতে যাওয়ার সময় ওই ব্যবসায়ী মানিক মিয়ার নিকট গচ্ছিত টাকা চাইলে নানা টালবাহানা শুরু করে। এমনকি গরু ব্যবসায়ীদের টাকা ফেরত না দিয়েই বাড়িঘরে তালা দিয়ে গা ঢাকা দেয়। ওই গরু ব্যবসায়ী উপায় না পেয়ে সোনাতলা থানায় এ বিষয়ে থানায় অভিযোগ করেন।
স্থানীয় লোকজন জানান, একজন প্রভাবশালী নেতা ওই গরু ব্যবসায়ীর গচ্ছিত টাকার মধ্যে ৭ লাখ টাকা মানিক মিয়ার নিকট থেকে ফেরত নিয়ে দেওয়ার জন্য দেন দরবার চালিয়ে যাচ্ছে।
এ ব্যাপারে স্থানীয় ইউপি সদস্য আব্দুল মান্নান ও জোড়গাছা ইউপি চেয়ারম্যান রোস্তম আলী মন্ডল ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, গত কয়েক বছর ধরে ওই গরু ব্যবসায়ীরা মানিক মিয়ার বাড়িতে থেকে প্রতি কোরবানীর ঈদে গরু কিনে নিয়ে গিয়ে চট্টগ্রাম এলাকায় নিয়ে গিয়ে বিক্রি করে।
এ বিষয়ে গরু ব্যবসায়ী নুরুল ইসলাম জানান, গত ৮ জুলাই ২০২১ তারিখে বগুড়া শহরের ঝাউতলা সোসাল ইসলামী ব্যাংক শাখা থেকে তিনি ১০ লাখ ৬০ হাজার টাকা উত্তোলন করেন। এছাড়াও তার নিকট আরও ৪ লাখ ১০ হাজার টাকা সহ মোট ১৪ লাখ ৭০ হাজার টাকা নিয়ে গরু কেনার উদ্দেশ্যে ওই এলাকায় আসে। এরপর টাকাগুলো মানিক মিয়ার স্ত্রী মোছাঃ রিতা বেগমের নিকট গচ্ছিত রাখা হয়। এরপর গরু কেনার জন্য টাকাগুলো চাওয়া হলে তারা নানা টালবাহানা শুরু করে।
এ বিষয়ে মানিক মিয়ার সাথে একাধিকবার মোবাইল ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করে তাকে পাওয়া যায়নি। এমনকি এ ঘটনার পর মানিক মিয়া ও তার পরিবারের সদস্যরা গা ঢাকা দিয়েছে বলে স্থানীয় লোকজন জানান।
এ বিষয়ে সোনাতলা থানার ওসি রেজাউল করিম রেজার সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি এ বিষয়ে থানায় অভিযোগ পাওয়া গেছে। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

শেয়ারকরুন: