বৃহস্পতিবার, ১৭ Jun ২০২১, ১১:০৩ অপরাহ্ন

নোটিশ
আমাদের ওয়েব সাইটে আপনাকে স্বাগতম.........
শিরোনাম >>>
খালেদা জিয়ার উন্নত চিকিৎসার জন্য বিদেশ যাওয়ার অনুমতি প্রসঙ্গে আবারও জোরালো দাবী জানালেন এম পি মোশারফ প্রবীন সাংবাদিক সরওয়ারের মৃত্যুতে জাতীয় সাংবাদিক সংস্থা’র শোক গাবতলীতে ৩দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ কার্যক্রমের সমাপনী অনুষ্ঠিত মরহুম আজম খানের সহধর্মিনীর সুস্থ্যতা কামনায় গাবতলীর দূর্গাহাটা ২নং ওয়ার্ড আ’লীগের উদ্যোগে দোয়া সোনাতলায় বাঁশহাটা গ্রামে গৃহবধুকে উত্যক্ত করার জেরে মারপিটে অটোচালক আহত বগুড়ায় আবু ত্ব-হা আদনান নিখোঁজের প্রতিবাদে মানববন্ধন আজম খাঁনের স্ত্রী’র সুস্থতা কামনায় গাবতলী উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের দোয়া মাহফিল আন্তনগর লালমনি ও রংপুর ট্রেনের টিকিট সরবরাহ না থাকায় যাত্রীদের বিড়ম্বনা স্বীকার হজ্জ ও ওমরাহ পালন করতে গিয়ে কেউ যেন হয়রানির স্বীকার না হয় সে বিষয়ে জাতীয় সংসদে কথা বললেন–এম পি মোশারফ হোসেন কাহালুতে ৫টি গাঁজার গাছ সহ এক ব্যক্তি আটক

সোনাতলায় পাওনা টাকা চাওয়ায় কাস্তের আঘাতে যুবক আহতঃ আটক ১

সোনাতলায় পাওনা টাকা চাওয়ায় কাস্তের আঘাতে যুবক আহতঃ আটক ১

রিমন আহম্মেদ বিকাশঃ বগুড়ার সোনাতলায় পাওনা টাকা চাওয়ায় প্রতিপক্ষের কাস্তের আঘাতে মিশু নামে এক যুবককে আহত করেছে।

আহত মিশু সোনাতলা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশ তরিকুল ইসলাম নামে এক যুবককে আটক করেছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলা বালুয়া ইউনিয়নের কুশারঘোপ গ্রামে। আহত যুবক ওই গ্রামের এমদাদুল হক ভিক্ষুর ভাগিনা এবং তরিকুল একই গ্রামের আশফুল ইসলামের ছেলে।

সরেজমিনে ও আহতের পরিবার সুত্রে জানাযায়, ৭ মে শুক্রবার মৃত মুসতজ্জামান এর ছেলে এমদাদুল হক একই এলাকার আশরাফুল ইসলামের ছেলে তরিকুলের কাছে ১০ কাঠা জমির ধানের খর (কারি) ১১শ টাকায় চুক্তিতে বিক্রি করে। সেই ধান মারাই করার পর তরিকুল ওই কারি বাড়িতে নিয়ে যায়। পরের দিন সকালে এমদাদুলের বাড়িতে এসে কারি কম হয়েছে বলে গালমন্দ করে। বাড়ির লোকজন তাকে বলে এখানে কারি কম হওয়ার কোনে সুযোগ নেই। আমরাতো কারি হিসাব করে বিক্রি করিনাই, চুক্তিতে বিক্রি করেছি আগে কারির টাকা দেন। সেখানে ওই তরিকুল হুমকী প্রদর্শন করে চলে আসেন। ৯ মে রবিবার সকালে মামা এমদাদুল হক ভিক্ষু ও ভাগ্নে মিশু অন্যের বাড়িতে ধান মারাইয়ের কাজে যাওয়ার সময় আগে থেকে ওৎ পেতে থাকা তরিকুল এমদাদুলকে বলে তুই নাকি আমাকে গালা-গালি করেছিছ। তুই কোনো টাকাই আমার কাছ থেকে পাবিনা, এই বলে এমদাদুলকে মারপিট শুরু করে। পাশে থাকা ভাগিনা মিশু মামাকে বাঁচাতে এগিয়ে এলে তরিকুলের কাছে থাকা কাস্তে দিয়ে মিশুর গলায় ফ্যাস দেয়। এতে মিশু গুরুত্বর আহত হয়। স্থানীয়রা উদ্ধার করে তাকে সোনাতলা হাসপাতালে ভর্তি করে দেয়।
এদিকে এ ঘটনায় তরিকুল মিশুকে মারার পর বাঁচার জন্য তার নিজ শয়ন ঘরে লুকিয়ে থাকে, এলাকাবাসী দেখতে পেয়ে ওই বাড়িটি ঘিরে রাখে এবং থানা পুলিশে খবর দেয়। থানা পুলিশ এসে তরিকুলকে উদ্ধার করে থানা হেফাজতে নেয়।এ বিষয়ে তরিকুলের বড় ভাই ভুট্র জানান, আমার ছোট ভাই অপরাধ করেছে তার শাস্তি পাক এটা আমি চাই। কিন্তু সেখানে এলাকাবাসী তরিকুলকে অবরুদ্ধ করেছে এটা দুঃখজনক।
এ বিষয়ে সোনাতলা থানা অফিসার ইনচার্জ রেজাউল করিম রেজা বলেন,এলাকাবাসী কর্তৃক অবরুদ্ধ রাখা তরিকুলকে উদ্ধার করে থানা হেফাজতে নেয়া হয়েছে।এ ব্যাপারে অভিযোগ বা এজাহার পেলে তদন্ত পূর্বক আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

শেয়ারকরুন: