রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:২১ অপরাহ্ন

নোটিশ
আমাদের ওয়েব সাইটে আপনাকে স্বাগতম.........
শিরোনাম >>>
গাবতলীতে মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকদের সাথে মতবিনিময় প্রধান অতিথি রাগেবুল আহসান রিপু গাবতলীতে নৌকা বাইচ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত মোকামতলায় এলপিজি অটো গ্যাস ষ্টেশনের উদ্বোধন কাহালুর পাইকড় ইউনিয়নে সরকারি খরচে আইনগত সহায়তা প্রদান বিষয়ক প্রাতিষ্ঠানিক গণশুনানী অনুষ্ঠিত ডোমারে সড়ক দূঘর্টনায় যুবক নিহত গাবতলীতে শিক্ষক সুজাকে লাঞ্ছিত করায় সুজনের নিন্দা গাবতলীতে শহীদ মুক্তিযোদ্ধাদের মাগফিরাত ও জীবিতদের কল্যাণ কামনায় দোয়া মাহফিল গাবতলীর নেপালতলী ইউনিয়ন মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড’র কমিটি অনুমোদন বগুড়া সদরের নিশিন্দারা ইউনিয়নের দশটিকায় ফুটবল টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত সোনাতলা-গাবতলী সড়কে  ট্রাকের চাপায় পৃষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলেই মোটরসাইকেল আরোহী মৃত্যু হয়েছে

৬২১ জনের নামে থানায় এজাহার গাবতলী পুর্বশত্রুতা ও মামলা তুলেনিতে বসতবাড়িতে অগ্নিসংযোগ

৬২১ জনের নামে থানায় এজাহার গাবতলী পুর্বশত্রুতা ও মামলা তুলেনিতে বসতবাড়িতে অগ্নিসংযোগ

মোঃ আমিনুর ইসলামঃ বগুড়ার গাবতলীতে পুর্ব শত্রুতার জেরধরে বসতবাড়িতে পেট্রোল ঢেলে আগুন দিয়েছে প্রতিপক্ষরা। এতে ব্যাপক ক্ষতিসহ বাড়ির পাশে জমির বেগুন গাছ কেটে বিনষ্টকরে জমি দখলের চেষ্টার অভিযোগে ৬২১ জনের নামে থানায় এজাহার দেয়া হয়েছে। পুলিশ ঘটনার স্থান পরিদর্শন করেছে। থানা ও এলাকাবাসী সুত্রে জানাগেছে, গাবতলী উপজেলার মহিষাবান ইউনিয়নের পুর্ব মহিষাবান মাষ্টার পাড়া গ্রামের আফজাল হোসেন বাদী হয়ে থানায় অভিযোগে বলেছেন, পাশের বাড়ির মজিবর রহমান মাষ্টারের ছেলে আব্দুল ওয়াহেদ মন্ডল মাষ্টারের সাথে দীর্ঘদিন থেকে জমিজমা নিয়ে শত্রুতা চলে আসছে। ইতিপুর্বে ওয়াহেদ মাষ্টার ও তার শ্যালক মিঠু মিয়ার নেতৃত্বে আমার বসতবাড়ি অগ্নিসংযোগ, ভাংচুর লুটপাটসহ কয়েকটি মামলা আদালতে বিচারাধিন রয়েছে। আসামীরা মামলা তুলে নিতে বাদী আফজাল হোসেনের বোনসহ কয়েকজনকে চলতি ২০২১ সালের ১২ জানুয়ারী হামলা করে আহত করে। এঘটনায় আকিমা বেগম বাদী হয়ে আদালতে ১৪ সি একটি মামলা দায়ের করেন। উক্ত মামলা আদালতে বিচারধিন রয়েছে। আবারো মামলা তুলে নিতে মজিবর রহমান মাষ্টারের ছেলে আব্দুল ওয়াহেদ মন্ডল মাষ্টার তার শ্যালক মিঠুসহ অন্যান্যরা আসামী বাদী আকিমা ও আফজাল হোসেনকে বিভিন্নভাবে হুমকি ধমকিসহ চাপ দিয়ে আসছিলেন। মামলা তুলে না নেয়ায় আসামীরা ক্ষিপ্ত হয়ে ৪ মার্চ বৃহস্পতিবার দুপুর ১ টায় ৬ শতাধিক বহিরাগত ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী প্রকৃতির লোক নিয়ে এসে বাদী আকিমা ও আফজাল হোনের বসতবাড়িতে পেট্রোল ঢেলে আগুন জ্বালিয়ে দেয়। এতে আছজাল হোসেনের ও আকিমা বেগমের পৃথকভাবে ২টি ঘর, মহিষাবান বহুমুখি স্কুলের ৮ম শ্রেনীর ছাত্রী আশামনির বই, খাতা, স্কুল ড্রেসসহ আসবাবপত্র পুড়ে ছাই হয়ে যায়। গাবতলী ফায়ার সার্ভিসে সংবাদ দেয়া হলে, ফায়ার সার্ভিস কর্মিরা ঘটনার স্থানে আসার আগেই স্থানীয় লোকজন আগুন নিভিয়ে ফেলে। এতে প্রায় ৩ লাখ টাকার ক্ষতিসহ ঘরে রক্ষিত গরু বিত্রিুর নগদ ৯৫ হাজার টাকা লুট করে নিয়ে যায় সন্ত্রাসরা। এছাড়াও বাদীর বাড়ির দক্ষিনপার্শ্বে অবস্থিত তার ৩২ শতাংশ জমির বেগুনের গাছ কেটে ফেলে। এতে আরো ১ লাখ টাকার ক্ষতি হয় বলে বাদী জানিয়েছে। ঘন্টাব্যাপি সন্ত্রাসীদের তান্ডব লীলায় বাদী ও গ্রামের লোক জন ভয়ে কোন কথা বলতে সাহস পায়নি। সংবাদ পেয়ে গাবতলী মডেল থানার ইন্সপেক্টর (অপরেশন) মোঃ লাল মিয়া সঙ্গীয় ফোর্সনিয়ে ঘটনার স্থান পরিদর্শন করেছেন। এব্যপারে তার সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, বসত বাড়িতে আগুন ও জমি দখলের সংবাদ পেয়ে ঘটনার স্থান পরিদর্শন করি। বাদীর অভিযোগের প্রেক্ষিতে তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থ্যা নেয়া হবে। থানায় আফজাল হোসেন ও আকিমা বেগম পৃথকভাবে বাদী হয়ে, মজিবর রহমান মাষ্টারের ছেলে আব্দুল ওয়াহেদ মন্ডল মাষ্টার তার শ্যালক মিঠুসহ ২১ জনের নাম উল্লেখ ও ৬০০শত জনকে অজ্ঞাত আসামী করে থানায় এজাহার দিয়েনে। আব্দুল ওয়াহেদ মাষ্টার বাড়িতে না থাকায় তার মতামত নেয়া সম্ভব হয়নি।

শেয়ারকরুন: